আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা (Interlocking Spur):

☻সংজ্ঞাঃ পার্বত্য অঞ্চলে নদীর প্রবাহপথে কঠিন শিলাসমূহ বাঁধার সৃষ্টি করলে নদী এঁকেবেঁকে চলতে শুরু করে । এর ফলে নদীর একটি পাড় অপর পাড়কে আড়াল করে রাখে । ফলে নদীর গতিপথ সোজাসুজি বেশী দূর পর্যন্ত দেখতে পাওয়া যায় না, দূর থেকে মনে হয় যেন শৈলশিরাগুলি আবদ্ধ বা শৃঙ্খলিত অবস্থায় রয়েছে, যে কারণে এদের আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা (Interlocking Spur) বলে ।

আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা (Interlocking Spur).jpg

আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা (Interlocking Spur)

উদাঃ হিমালয়ে মন্দাকিনী নদীর গতিপথে এরকম অসংখ্য আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা দেখা যায় ।

বৈশিষ্ট্যঃ  আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা – র বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) এগুলি মূলত নদীর উচ্চ প্রবাহে পার্বত্য অঞ্চলে দেখা যায় ।
খ) এগুলি নদীর ক্ষয়কার্যজনিত ভূমিরূপ ।
গ) এরা নদী প্রবাহের দৃশ্যমানতাকে দূর থেকে আড়াল করে রাখে ।

3 thoughts on “আবদ্ধ শৈলশিরা বা শৃঙ্খলিত শৈলশিরা (Interlocking Spur):

  1. Pingback: নদীর ক্ষয়কার্য (Erosional Works of River) ও ক্ষয়কার্যের প্রক্রিয়াসমূহ (Processes of Erosional Works): – bhoogolok.com

  2. Pingback: আদর্শ নদী (Ideal River): – bhoogolok.com

  3. Pingback: নদীর ক্ষয়কার্য (Erosional Works of River) ও ক্ষয়কার্যের প্রক্রিয়াসমূহ (Processes of Erosional Works): | bhoogolok.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.