ভূমিকাঃ পেট্রোরসায়ন শিল্পকে সূর্যোদয় শিল্প বা উদীয়মান শিল্প বলা হয় । ভারতে এই শিল্পের বয়স মাত্র ৫০ বছরের কিছু বেশী । তৃতীয় পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার শেষের দিকে ১৯৬৬ সাল থেকে দেশে এই শিল্পের সূত্রপাত ঘটে । ১৯৬৬ সালে ট্রম্বেতে Union Carbide Limited প্রথম পেট্রোরসায়ন কারখানা স্থাপন করে । ১৯৬৭-৬৮ সালে আরও দুটি কারখানা বেসরকারী মালিকানায় স্থাপিত হয় । ১৯৬৯ সালে ভারত সরকার গুজরাটের বদোদরায় এবং পরবর্তী কালে আসামের বংগাইগাঁওতে বৃহদাকার পেট্রোরসায়ন

বিস্তারিত

খনিজ অর্থাৎ ‘খনি থেকে জাত’; সুতরাং খনি থেকে উত্তোলিত সকল দ্রব্যই খনিজ । অন্যভাবে বলা যায়, প্রকৃতি থেকে প্রাপ্ত বস্তুসমূহ যাদের রাসায়নিক উপাদান ও পারমাণবিক গঠন সুনির্দিষ্ট এবং যেগুলি অজৈব প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সৃষ্ট, তাদের খনিজ (Minerals) বলে । আবার, যে সব খনিজ দ্রব্যের কার্যকারিতা আছে, তাদের খনিজ সম্পদ (Mineral Resource) বলে । উদাহরণঃ লৌহ আকরিক, ম্যাংগানিজ, অভ্র, তামা প্রভৃতি । বৈশিষ্ট্যঃ খনিজ – এর বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ – ক)

বিস্তারিত

সংজ্ঞাঃ কৃষিজ, খনিজ, বনজ বা প্রানীজ প্রভৃতি যে কোনও প্রকার উৎস থেকে প্রাপ্ত যে সকল উপকরণ বিভিন্ন শিল্পজাত দ্রব্য উৎপাদনের উদ্দেশ্যে শিল্পের প্রধান উপাদান হিসাবে ব্যবহৃত হয়, তাদের শিল্পের কাচামাল বলে । উদাহরণঃ কার্পাস তন্তু হলো কার্পাস বস্ত্রবয়ন শিল্পের প্রধান কাচামাল, লৌহ আকরিক হলো লৌহ-ইস্পাত শিল্পের প্রধান কাচামাল । বৈশিষ্ট্যঃ শিল্পের কাচামাল – এর বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ – ক) কাচামাল একটি শিল্পোদ্যোগের প্রাথমিক ও প্রধান শর্ত । খ) এটি বিভিন্ন

বিস্তারিত

বিশুদ্ধ কাচামাল নির্ভর শিল্পগুলির ক্ষেত্রে পরিবহণ ব্যয়ের গুরুত্ব অপেক্ষাকৃত কম হওয়ায় শিল্পকেন্দ্রগুলি যেমন উৎস অঞ্চলে গড়ে উঠতে পারে, তেমনই অন্যান্য সুযোগ সুবিধাহেতু দূরবর্তী কোনো স্থানেও সাবলীলভাবে গড়ে উঠতে পারে । তাই এইপ্রকার শিল্পগুলি শিকড় আলগা শিল্প (Footloose Industry) নামে পরিচিত । কার্পাস বস্ত্রবয়ন শিল্পের প্রধান কাচামাল হলো কার্পাস তন্তু, প্রকৃতিগত দিক থেকে যা একটি বিশুদ্ধ কাচামাল । কাচামাল হিসেবে শিল্পে ব্যবহৃত কার্পাস তন্তুর ওজনগত পরিমান এবং উৎপাদিত শিল্পদ্রব্যের ওজনগত পরিমান

বিস্তারিত

সংজ্ঞাঃ বিশুদ্ধ কাচামাল নির্ভর শিল্পগুলির ক্ষেত্রে পরিবহণ ব্যয়ের গুরুত্ব অপেক্ষাকৃত কম হওয়ায় শিল্পকেন্দ্রগুলি যেমন উৎস অঞ্চলে গড়ে উঠতে পারে, তেমনই অন্যান্য সুযোগ সুবিধাহেতু দূরবর্তী কোনো স্থানেও সাবলীলভাবে গড়ে উঠতে পারে । তাই এইপ্রকার শিল্পগুলি শিকড় আলগা শিল্প (Footloose Industry) নামে পরিচিত । উদাহরণঃ কার্পাস বস্ত্রবয়ন শিল্প বৈশিষ্ট্যঃ শিকড় আলগা শিল্প – এর বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ – ক) এইপ্রকার শিল্পের কাচামাল বিশুদ্ধ প্রকৃতির । খ) বিশেষ পরিবেশের উপর ভিত্তি করে শিল্পগুলি

বিস্তারিত

শিল্প একটি প্রযুক্তিনির্ভর জটিল প্রক্রিয়া, যার জন্য প্রাথমিকভাবে কিছু অত্যাবশ্যকীয় উপাদান প্রয়োজন হয়; এগুলি হলো পর্যাপ্ত কাচামালের যোগান, উপযুক্ত পরিকাঠামো, আধুনিক প্রযুক্তি, দক্ষ ও সুলভ শ্রমিক, উন্নত পরিবহন, বিশাল বাজার প্রভৃতি । এই সকল উপাদানগুলি সংশ্লিষ্ট শিল্পের স্থাপন ও উন্নতিকে নিয়ন্ত্রণ করে । এখানে আমাদের মনে রাখতে হবে যে, উল্লিখিত উপাদানগুলির মধ্যে পরিকাঠামো ও পরিবহন এই দুটি শর্তের প্রধান উপকরণ হলো লৌহ-ইস্পাত, যা উৎপাদিত হয় লৌহ-ইস্পাত শিল্প থেকে । অতএব,

বিস্তারিত