সেন্সর কি?

সংজ্ঞাঃ মহাকাশ থেকে ভূপৃষ্ঠের কোনো নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুর দ্বারা প্রতিফলিত আলোকতরঙ্গ গ্রহণ করে ওই বস্তুর বৈশিষ্ট্যাবলী তুলে ধরে যে বিশেষ যন্ত্র বা ডিভাইস ( Device ) , তাকে সেন্সর ( Sensor ) বলে ।

উদাহরণঃ র‍্যাডার , ফটোগ্রাফিক ক্যামেরা প্রভৃতি ।

শ্রেণীবিভাগঃ আলোর উৎস অনুসারে সেন্সরকে মূলত দুটি ভাগে ভাগ করা হয় । যথা –
১. সক্রিয় সেন্সরঃ যে সব সেন্সরগুলি সৌরশক্তির উপর নির্ভর না করে নিজস্ব শক্তি বা আলোর সাহায্যে বস্তুর প্রতিফলন সংগ্রহ করে , তাদের সক্রিয় সেন্সর বলে । যেমন – এক্টিভ সেন্সর , র‍্যাডার প্রভৃতি ।
২. নিষ্ক্রিয় সেন্সরঃ কোনও বস্তু বা উপাদানের প্রতিফলন বা প্রতিকৃতি সংগ্রহের জন্য যে সব সেন্সর সৌরশক্তি বা সৌরালোকের উপর নির্ভর করে থাকে , তাদের নিষ্ক্রিয় সেন্সর বলে । যেমন – ফটোগ্রাফিক ক্যামেরা , টিভি ক্যামেরা প্রভৃতি ।

বৈশিষ্ট্যঃ সেন্সর – এর বৈশিষ্ট্যগুলি হল নিম্নরূপ –
১. এগুলি চারিত্রিক দিক থেকে এক একটি বিশেষ যন্ত্র বা ডিভাইস ।
২. এগুলির নিজস্ব শক্তি বা আলো থাকতে পারে বা না থাকতেও পারে ।
৩. এরা মূলত কোনও বস্তু বা উপাদানের প্রতিকৃতি বা প্রতিফলন সংগ্রহ করে থাকে ।
৪. কিছু সেন্সর দিন – রাত নির্বিশেষে তথ্য সংগ্রহ করতে পারলেও অধিকাংশ সেন্সরই কেবল দিনের বেলাতেই তথ্য সংগ্রহে সক্ষম ।

গুরুত্বঃ আধুনিক মহাকাশ বিজ্ঞানের উন্নতির ক্ষেত্রে সেন্সর যুগান্তকারী বিপ্লব ঘটিয়েছে । কৃত্রিম উপগ্রহগুলির তথ্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে সেন্সরের ব্যবহার তথ্য সংগ্রহকে আরও সঠিক ও তথ্যবহুল করে তুলেছে । সাম্প্রতিককালে আবিস্কৃত উন্নত মানের সেন্সরগুলির ব্যবহার স্যাটালাইট ইমেজারির উপাদানগুলিকে আরও সুনির্দিষ্ট ও স্পষ্ট করে তোলার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে ।