দক্ষিণ ভারতে জলাশয়ের মাধ্যমে জলসেচ অধিক প্রচলিত কেন?

মৌসুমি বায়ুর খামখেয়ালিময় বৃষ্টিপাতের কারণে প্রায় সারা ভারত জুড়েই জলসেচ করা হয় । আঞ্চলিক বৈশিষ্ট্যাবলীর উপর ভিত্তি করে এক এক অঞ্চলে এই পদ্ধতি এক একরকম । উত্তর ভারতে যেখানে সেচখাল ও নলকূপের সাহায্যে জলসেচ অধিক প্রচলিত , তেমনই আবার ভারতের দক্ষিনাঞ্চলে জলাশয়ের মাধ্যমে জলসেচ অধিক প্রচলিত । নিচে দক্ষিণ ভারতে জলাশয়ের মাধ্যমে জলসেচ অধিক প্রচলিত কেন তা নিয়ে আলোচনা করা হল –

১. অপ্রবেশ্য শিলার উপস্থিতিঃ দাক্ষিণাত্য মালভূমির অধিকাংশ জায়গায় মাটির নীচে অপ্রবেশ্য শিলা থাকায় ভৌমজলের সঞ্চয় কম ।

২. নদীর কম উপস্থিতিঃ দক্ষিণ ভারতে সর্বত্র নদী না থাকায় এবং ভূমিভাগ কঠিন আগ্নেয় শিলাস্তর দ্বারা গঠিত হওয়ায় খাল খনন করে জলসেচ করা সহজ নয় ।

৩. তরঙ্গায়িত ভূমিভাগঃ অপ্রবেশ্য শিলাগঠিত এই মালভূমির ঢেউখেলানাে ভূমিতে বহু জলাশয় সৃষ্টি হয়েছে । এই জলাশয়গুলিই এখানকার জলসেচের প্রধান উৎস ।

৪. বৃষ্টির জলের স্বল্পতাঃ দক্ষিণ ভারতের নদীগুলি বৃষ্টির জলে পুষ্ট হওয়ায় সারাবছর জলসেচের জন্য প্রয়ােজনীয় জল পাওয়া যায় না ।