বিল বলতে কি বোঝ?

সংজ্ঞাঃ উত্তর ভারত ও উত্তর – পূর্ব ভারতের সমভূমি অঞ্চলে স্থানে স্থানে মাঝেই মাঝেই স্বাভাবিক উপায়ে সৃষ্ট আবদ্ধ জলাভূমি দেখতে পাওয়া যায় । এদের বিল বলে ।

উদাহরণঃ হাওড়ার সাতরাগাছি বিল , কোচবিহারের রসিক বিল , উত্তর ২৪ পরগনার বল্লির বিল বা বিল বল্লি প্রভৃতি ।

বৈশিষ্ট্যঃ বিল – এর বৈশিষ্ট্যগুলি নিম্নরূপ –
১. মূলত প্লাবন ভূমি অঞ্চলে স্বাভাবিকভাবেই বিল সৃষ্টি হয় ।
২. এগুলি অগভীর প্রকৃতির হয় ।
৩. বর্ষাকালে এগুলি জলে ভরে ওঠে এবং শুষ্ক ঋতুতে প্রায় শুকিয়ে যায় ।

গুরুত্বঃ বিল – এর গুরুত্বগুলি নিম্নরূপ –
১. এগুলি জীববৈচিত্র্যপূর্ণ বিভিন্ন উদ্ভিদ ও প্রাণীর আবাসস্থল ।
২. স্থানীয় মৎস চাহিদার এক বিরাট অংশ বিল থেকে আসে ।
৩. অতিরিক্ত জল ধারণ করে বিল জলমগ্নতার হাত থেকে পার্শ্ববর্তী জনবসতি অঞ্চলগুলিকে রক্ষা করে ।
৪. বর্ষার ধান ও শুষ্ক সময়ে বিভিন্ন কৃষিফসল এখানে উৎপাদিত হয়ে থাকে ।
৫. পদ্ম , শাপলা , পানিফল , হোগলা প্রভৃতি আহরণ করে স্থানীয় মানুষজন জীবিকা নির্বাহ করে ।

বর্তমান পরিস্থিতিঃ অত্যাধিক মানবিক কার্যাবলীর কারণে বর্তমানে বিলগুলি ভয়াবহ হুমকির মুখোমুখি হয়েছে । পরিস্থিতি কিছুটা নিচে তুলে ধরা হল –
১. মাছ চাষের ব্যক্তিগত ভেড়ি কেটে , কৃষিজমিতে রূপান্তর করে , বসতি বিস্তার করে দিনের পর দিন বিলগুলির আয়তন সংকুচিত হচ্ছে ।
২. পার্শ্ববর্তী জনবসতি এলাকা থেকে নিত্যনৈমিত্তিক অবিশ্লেষ্য আবর্জনা ও নোংরা জল এসে বিলের গভীরতা ও জীববৈচিত্র্য উভয়ই হ্রাস করছে ।
৩. অবাধে মৎস ও অন্যান্য জলজ প্রানী শিকার , পরিযায়ী পাখি শিকার , উদ্ভিদ সংগ্রহ বিলের বাস্ততান্ত্রিক পরিবেশকে বিপন্ন করে তুলছে ।
৪. অনেক বিলকে নদীর সাথে খালের মাধ্যমে সংযুক্ত করা হয়েছে । এর ফলে জোয়ারের নোনা জল বিলে প্রবেশ করে বিলের স্বাভাবিক বৈশিষ্ট্যাবলী বিঘ্নিত হচ্ছে ।
উপরিউক্ত ঘটনা প্রবাহ বিলগুলির দ্রুত অবনমন ঘটাচ্ছে । তাই মানবিক কার্যাবলীর মাধ্যমে বিলের চরিত্রের পরিবর্তন অবশ্যই সতকর্তার সাথে পরিচালিত করতে হবে ।