ভারতের ভৌগোলিক অবস্থান ও আয়তন লেখ।

ভারত এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণে , প্রায় মধ্যভাগে একটি ত্রিভুজাকৃতি উপদ্বীপের ( Peninsula ) অংশরূপে অবস্থান করছে । এই উপদ্বীপের তিনদিক বেষ্টন করে আছে তিনটি সমুদ্র , যথা : পূর্বে বঙ্গোপসাগর , পশ্চিমে আরব সাগর এবং দক্ষিণে ভারত মহাসাগর । ভারতের তিনদিক সাগর – বেষ্টিত হওয়ায় জলপথে ব্যবসা – বাণিজ্যের সুবিধা হয়েছে । উত্তরে হিমালয় , হিন্দুকুশ প্রভৃতি দুর্গম পর্বতশ্রেণী ভারতকে এশিয়া মহাদেশের অন্যান্য অংশ হইতে বিচ্ছিন্ন করেছে এবং বহিঃশত্রুর আক্রমণ হতে কিছুটা রক্ষা করেছে । ভারত পূর্ব গােলার্ধের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত হওয়ায় এই গােলার্ধের যে – কোন স্থানের সাথে যোগাযােগ স্থাপন সহজ হয়েছে । সুতরাং ভারতের এই বিশেষ ভৌগোলিক অবস্থান ও আয়তন ভারতকে নানা দিক হতে বৈশিষ্ট্য প্রদান করেছে ।

ভারত নিরক্ষরেখার উত্তরে অর্থাৎ উত্তর গােলার্ধে অবস্থিত । এটি দক্ষিণে ৮° ৪’ উত্তর অক্ষাংশ ( কন্যাকুমারিকা অন্তরীপ ) হইতে উত্তরে ৩৭°৬’ উত্তর অক্ষাংশ ( কাশ্মীরের সর্বোত্তর সীমা ) পর্যন্ত প্রায় ৩,২০০ কিলােমিটার এবং ৬৮°৭ ’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ ( রাজস্থানের পশ্চিম সীমা ) থেকে ৯৭°২৫’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ ( অরুণাচল প্রদেশের পূর্ব সীমা ) পর্যন্ত প্রায় ৩,০০০ কিলােমিটারব্যাপী বিস্তৃত । ভারতের মােট আয়তন প্রায় ৩২,৬৭,৫০০ বর্গকিলােমিটার । এর স্থলভাগের পরিসীমার দৈর্ঘ্য ১৫,২০০ কিঃ মিঃ হলেও উপকূলভাগ কম ভগ্ন হওয়ায় তাহার দৈর্ঘ্য মাত্র ৫,৫৬০ কিঃ মিঃ । আয়তনের দিক দিয়ে ভারতের স্থান পৃথিবীতে সপ্তম । কিন্তু জনসংখ্যা হিসাবে এর স্থান দ্বিতীয় ( চীনের পরেই ) । কর্কটক্রান্তি রেখা ( ২৩ ১/২ ° উঃ অক্ষাংশ ) ভারতের প্রায় মধ্যস্থল দিয়ে অতিক্রম করে ভারতকে উত্তর ও দক্ষিণ এই দুই অংশে বিভক্ত করিয়াছে । ৮০° পূর্ব দ্রাঘিমা রেখা অনুরূপভাবে ভারতকে পূর্ব – পশ্চিমে প্রায় সমদ্বিখণ্ডিত করেছে । মােটামুটিভাবে ভারত ২৯° অক্ষাংশ ও ২৯° দ্রাঘিমাংশ ব্যাপিয়া বিস্তৃত ।