তিন বিঘা করিডর কি?

পরিচিতিঃ দুটি প্রতিবেশী দেশ যখন পারস্পরিক আলােচনার মাধ্যমে একটি দেশের অভ্যন্তরে থাকা অন্যদেশের এলাকার সঙ্গে যােগাযােগ রক্ষার জন্য অন্যদেশকে শর্তসাপেক্ষে নির্দিষ্ট স্থান ব্যবহারের অনুমতি দেয় , তখন ওই নির্দিষ্ট স্থানকে করিডর বলে । পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার সীমান্তে মেখলিগঞ্জ কুচলি বাড়ি অঞ্চলে ১৭৮ মিটার দীর্ঘ ও ৮৫ মিটার প্রশস্ত স্থান ১৯৯২ সালে ২৬ শে জুন ভারত বাংলাদেশকে ব্যবহারের জন্য লিজ দেয় । এই নির্দিষ্ট স্থান ‘ তিন বিঘা করিডর ’ নামে পরিচিত ।

গঠনের উদ্দেশ্যঃ ভারতের পশ্চিমবংগ এবং বাংলাদেশ সীমান্তে বাংলাদেশের অন্তর্গত দহগ্রাম এবং আংড়াপােতা নামক অঞ্চল দুটি ভারতীয় ভূখন্ড দ্বারা বেষ্ঠিত । এজন্য বাংলাদেশের অধিবাসীরা যাতে ওই দুই অঞ্চলের সঙ্গে যােগাযােগ রাখতে পারে সেজন্য বাংলাদেশের পানাবাড়ি মৌজা থেকে ওই দুই অঞ্চলের সঙ্গে যােগাযােগের পথ হিসেবে ভারত বাংলাদেশকে ‘ তিনবিঘা করিডর ’ ব্যবহারের জন্য লিজ দেয়ে ।

দায়িত্বঃ তিন বিঘা করিডর ব্যবহারের জন্য বাংলাদেশকে লিজ দেওয়া হলেও ওই অঞ্চলের নিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলার সকল দায়িত্ব ভারত সরকারের ।