সামুদ্রিক শৈলশিরা কি?

সংজ্ঞাঃ মহাসাগরগুলাের তলদেশে অসংখ্য নিমজ্জিত আগ্নেয়গিরি অবস্থান করছে । ভূ – গর্ভস্থিত ম্যাগমা মহাসাগরগুলাের তলদেশের ফাটল দিয়ে অগ্ন্যুৎপাতের মাধ্যমে বেরিয়ে এসে সমুদ্রের তলদেশে সারি সারি দীর্ঘ ও উচ্চ আকৃতির ভূমিরূপ সৃষ্টি করে । এদের সামুদ্রিক শৈলশিরা ( Ridge ) বলে । প্রতিটি মহাসাগরে এই শৈলশিরাগুলি জলমগ্ন অবস্থায় থাকে বলে এদের নিমগ্ন শৈলশিরা ( Submarine Ridges ) – ও বলা হয়ে থাকে । কোনাে কোনাে স্থানে ঐ নিমজ্জিত শৈলশিরা সমুদ্রজলের ওপরে উঠে আসে ও দ্বীপের সৃষ্টি করে ।

উদাহরণঃ উল্লেখযােগ্য শৈলশিরা হল মধ্য – আটলান্টিক শৈলশিরা ( Mid – Atlantic Ridge ) , পূর্ব প্রশান্ত মহাসাগরীয় শৈলশিরা . ( East Pacific Ridge ) , মধ্য – ভারত মহাসাগরীয় শৈলশিরা ( Mid – Indian Ridge ) ও আন্টার্কটিক শৈলশিরা ( Antarctic Ridge ) ।

গভীরতা ও বিস্তৃতিঃ এই শৈলশিরাগুলি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৫০০ মিটার গভীরে লক্ষ করা যায় । এবং এদের বিস্তৃতি প্রায় ৫ থেকে ৮ কিমি পর্যন্ত । যেমন মধ্য আটলান্টিক মহাসাগরের শৈলশিরার বিস্তৃতি সুদূর প্রসারিত । 

সামুদ্রিক সঞ্চয় ও অর্থনৈতিক গুরুত্বঃ এই সমুদ্রাঞ্চলে মূলত নিমজ্জিত আগ্নেয়গিরি থাকার ফলে গলিত লাভা বা আগ্নেয়গিরি থেকে বেরিয়ে আসা জ্বলন্ত নুড়ি , পাথর ও ছাই এবং প্রবাল জাতীয় কীটের দেহাবশেষ লক্ষ করা যায় ।