জিওস্ট্রফিক বায়ু (Geostrophic Wind):

বুৎপত্তিগত অর্থঃ গ্রিক শব্দ ‘Geo’ – এর অর্থ ‘পৃথিবী’ ও ‘Strepho’ – এর অর্থ ‘ঘোরা’, যা থেকে Geostrophic শব্দটির উৎপত্তি হয়েছে ।

সংজ্ঞাঃ ঊর্দ্ধাকাশে সমচাপরেখার সাথে সমান্তরালভাবে বায়ু প্রবাহিত হয় । এইপ্রকার বায়ুপ্রবাহ জিওস্ট্রফিক বায়ু (Geostrophic Wind) নামে পরিচিত ।

অবস্থানঃ জিওস্ট্রফিক বায়ু মূলত: উচ্চাকাশে ঊর্দ্ধবায়ুতে অর্থাৎ, ট্রপোস্ফিয়ার – এর উচ্চাংশে ৫ – ৯ কিলোমিটারের মধ্যে প্রবাহিত হয় ।

উৎপত্তিঃ উচ্চাকাশের ঊর্দ্ধবায়ুতে মূলত: দুটি শক্তি ক্রিয়াশীল থাকে; যথা – বায়ুচাপের অবক্রমজনিত শক্তি ও কোরিওলিস বল । ঊর্দ্ধবায়ুতে এই দুই শক্তির পরিমাণ সমান এবং তারা পরস্পরের বিপরীতদিকে ক্রিয়া করে । ফলে এই দুই শক্তির মধ্যে সামঞ্জস্য বাধিত হয়ে সমচাপরেখার সাথে সমান্তরালভাবে প্রবাহিত জিওস্ট্রফিক বায়ু উৎপত্তি লাভ করে ।

বৈশিষ্ট্যঃ জিওস্ট্রফিক বায়ু – র বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) উত্তর গোলার্ধে নিম্নচাপ অঞ্চল বায়ুপ্রবাহের বামদিকে ও দক্ষিণ গোলার্ধে নিম্নচাপ অঞ্চল বায়ুপ্রবাহের ডানদিকে অবস্থান করে ।
খ) এইপ্রকার বায়ুতে কোরিওলিস বল ও বায়ুচাপের অবক্রমজনিত শক্তির পরিমাণ সমান থাকে ।

One thought on “জিওস্ট্রফিক বায়ু (Geostrophic Wind):

  1. Pingback: রসবি তরংগ (Rossby Winds): – bhoogolok.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.