ফেরেলের সূত্র (Ferral’s Law):

☻প্রবক্তাঃ আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত আবহবিদ উইলিয়াম ফেরেল (William Ferral) ১৮৫৯ খ্রীষ্টাব্দে এই সূত্রটির উদ্ভাবন করেন এবং তাঁর নামানুসারেই এটি ফেরেলের সূত্র (Ferral’s Law) নামে পরিচিত ।

সূত্রের প্রেক্ষাপটঃ ফেরেলের সূত্র – এর প্রেক্ষাপট মূলতঃ প্রস্তুত হয়েছিল উনবিংশ শতকের ফরাসী গণিতবিদ গুস্তাভ-গাসপার্ড কোরিওলিস কর্তৃক উদ্ভাবিত কোরিওলিস বল – এর নীতিসংক্রান্ত পৃথিবীর ঘূর্ণনের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ গোলার্ধভিত্তিক বায়ুবিক্ষেপের উপর নির্ভর করে ।

সূত্রঃ কোরিওলিস বলের প্রভাবে বায়ুপ্রবাহ উচ্চচাপ থেকে নিম্নচাপের দিকে সোজাপথে প্রবাহিত না হয়ে উত্তর গোলার্ধে ডানদিকে এবং দক্ষিণ গোলার্ধে বামদিকে বেঁকে প্রবাহিত হয় ।

প্রমাণঃ ফেরেলের সূত্র অনুসারে আয়ন বায়ু সোজাভাবে প্রবাহিত না হয়ে উত্তর গোলার্ধে ডানদিকে  উত্তর-পূর্ব আয়ন বায়ুরূপে এবং দক্ষিণ গোলার্ধে বামদিকে দক্ষিণ-পূর্ব আয়ন বায়ুরূপে বেঁকে প্রবাহিত হয় ।

4 thoughts on “ফেরেলের সূত্র (Ferral’s Law):

  1. Pingback: মৌসুমী বায়ু (Monsoon Wind): – bhoogolok.com

  2. Pingback: মেরু বায়ু (Polar Wind): – bhoogolok.com

  3. Pingback: পশ্চিমা বায়ু (The Westerlies): – bhoogolok.com

  4. Pingback: আয়ন বায়ু (Trade Winds): – bhoogolok.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.