পশ্চিমা বায়ু (The Westerlies):

সংজ্ঞাঃ দুই ক্রান্তীয় অঞ্চলের (কর্কটীয় ও মকরীয়) উচ্চচাপ বলয় থেকে মেরুবৃত্ত প্রদেশীয় নিম্নচাপ বলয়ের দিকে সারাবছর নির্দিষ্ট দিকে ও নির্দিষ্ট গতিতে যে বায়ু প্রবাহিত হয়, তাকে পশ্চিমা বায়ু (The Westerlies) বলে ।

অবস্থানঃ উভয় গোলার্ধের ৩৫°-৬০° উঃ/দঃ অক্ষাংশের এইপ্রকার বায়ু প্রবাহিত হয় ।

পশ্চিমা বায়ু (The Westerlies)

পশ্চিমা বায়ু (The Westerlies)

শ্রেণীবিভাগঃ গতিপথ অনুযায়ী পশ্চিমা বায়ু মূলত দুই প্রকার । যথা –
a) দক্ষিণ-পশ্চিম পশ্চিমা বায়ু ( South-West Westerlies): উত্তর গোলার্ধের কর্কটীয় উচ্চচাপ বলয় থেকে পশ্চিমা বায়ু ফেরেলের সূত্র অনুসারে ডানদিকে বেঁকে দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে সুমেরুবৃত্ত প্রদেশীয় নিম্নচাপ বলয়ের দিকে প্রবাহিত হয় । একে দক্ষিণ-পশ্চিম পশ্চিমা বায়ু ( South-West Westerlies) বলে ।
b) উত্তর-পশ্চিম পশ্চিমা বায়ু (North-West Westerlies): দক্ষিণ গোলার্ধের মকরীয় উচ্চচাপ বলয় থেকে পশ্চিমা বায়ু ফেরেলের সূত্রানুসারে বামদিকে বেঁকে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে কুমেরুবৃত্ত প্রদেশীয় নিম্নচাপ বলয়ের দিকে প্রবাহিত হয় । একে দক্ষিণ-পশ্চিম পশ্চিমা বায়ু ( South-West Westerlies) বলে ।

প্রভাবঃ পশ্চিমা বায়ু – র প্রভাবগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) পশ্চিমা বায়ু মহাদেশগুলির পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে প্রবাহিত হয় । ফলে মহাদেশগুলির পূর্বাংশে ক্রমশ বৃষ্টিপাত কমতে থাকে, যে কারণে মহাদেশগুলির মধ্যবর্তী স্থানে বৃহৎ নাতিশীতোষ্ণ তৃণভূমিগুলির সৃষ্টি হয়েছে । উদাঃ উত্তর আমেরিকার প্রেইরী তৃণভূমি, দক্ষিণ আমেরিকার পম্পাস তৃণভূমি, আফ্রিকার ভেল্ড তৃণভূমি, অস্ট্রেলিয়ার ডাউনস তৃণভূমি, ইউরোপ ও মধ্য এশিয়ার স্তেপ তৃণভূমি প্রভৃতি ।
বিস্তীর্ণ এইসব তৃণভূমিগুলিতে অনেক পশুচারণক্ষেত্র গড়ে উঠেছে । ফলে এখানাকার প্রধান শিল্প হিসাবে ডেয়ারী শিল্প বিকাশলাভ করেছে । পাশাপাশি, চর্ম শিল্প, মাংস শিল্প, পশম শিল্প প্রভৃতিও এইসকল অঞ্চলগুলিতে যথেষ্ট উন্নতিলাভ করেছে । এছাড়াও, এইসকল অঞ্চলে প্রচুর পরিমানে ফুল,ফল, শাকসবজি প্রভৃতিও উৎপাদিত হয়ে থাকে ।
খ) পশ্চিমা বায়ুর প্রভাবে মহাদেশের পশ্চিমপ্রান্তে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয় । যার ফলে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলিতে আর্দ্র ও স্যাঁতস্যাঁতে প্রকৃতির পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে ।
গ) পশ্চিমা বায়ুর পরোক্ষ প্রভাবেও পৃথিবীর অনেক স্থানের জলবায়ু পরিবর্তিত হয়েছে । যেমন – ক্রান্তীয় অঞ্চলে অবস্থিত হওয়ার কারণে সামগ্রিকভাবে ভারতের জলবায়ু উষ্ণ প্রকৃতির হওয়া বাঞ্চনীয় ছিল, কিন্তু পশ্চিমা বায়ুর প্রভাবে তা যথেষ্ট পরিবর্তিত হয়েছে ।

6 comments

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s