জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী (Trellised Drainage Pattern):

সংজ্ঞাঃ নদী অববাহিকার উৎস অঞ্চলে যে সকল অংশে কঠিন ও কোমল শিলা পরপর অবস্থান করে সেখানে পরবর্তী নদীগুলি (Subsequent Stream ) বা মুখ্য উপনদীগুলি কঠিন শিলাস্তর এড়িয়ে দূর্বল শিলাস্তরের আয়াম বরাবর পরস্পরের সমান্তরালে প্রবাহিত হয়ে সমকোণে প্রধান বা অনুগামী নদীর (Trunk Or, Consequent stream) সাথে মিলিত হয় । এই পরবর্তী নদীগুলি বা মুখ্য উপনদীগুলি আবার গৌণ উপনদীগুলির (Secondary Tributaries) সাথে সমকোণে (৯০ ডিগ্রি) মিলিত থাকে । এইভাবে প্রধান নদী বা অনুগামী নদী, পরবর্তী নদী বা মুখ্য উপনদী ও গৌণ উপনদীগুলির সমন্বয়ে যে বিশেষ নক্সা বা ডিজাইনের জলনির্গম প্রণালী সৃষ্টি হয়, তাকে জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী (Trellised Drainage Pattern) বলা হয় ।

জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী (Trellised Drainage Pattern)

জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী (Trellised Drainage Pattern)

উদাঃ আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাপেলেশিয়ান ভঙ্গিল পর্বতে, ভারতের শোনপার পাহাড়ে জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী দেখতে পাওয়া যায় ।

বৈশিষ্ট্যঃ জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী – র বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) এই প্রকার জলনির্গম প্রণালীতে শিলাস্তরের আয়াম বরাবর পরবর্তী নদীগুলি বা মুখ্য উপনদীগুলি গৌণ উপনদীগুলির সাথে এবং পরবর্তী নদীগুলি বা মুখ্য উপনদীগুলি প্রধান নদীর সাথে প্রায় সমকোণে (৯০ ডিগ্রি) মিলিত হয় ।
খ) জলনির্গম প্রণালীর মধ্যবর্তী কঠিন শিলাস্তরগুলি পরবর্তী নদীগুলির উভয়পাশে শৈলশিরারূপে অবস্থান করে ।
গ) এই প্রকার জলনির্গম প্রণালীতে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের আভ্যন্তরীণ গঠনের সাথে অধিকাংশ নদীগুলির একটি নিবিড় সম্পর্ক দেখতে পাওয়া যায় ।

One thought on “জাফরিরূপী জলনির্গম প্রণালী (Trellised Drainage Pattern):

  1. Pingback: জলনির্গম প্রণালী (Drainage Pattern): – bhoogolok.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.