বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী (Dendritic Drainage Pattern):

বুৎপত্তিগত অর্থ: গ্রীক শব্দ ‘Dendron’ এর অর্থ হল বৃক্ষ, যেখান থেকে বৃক্ষরূপী কথাটি এসেছে ।

সংজ্ঞাঃ আর্দ্র জলবায়ু অঞ্চলে অনুভূমিকভাবে অবস্থিত পাললিক শিলাস্তরযুক্ত বা লাভা মালভূমিতে সৃষ্ট বিভিন্ন উপনদীগুলি পরস্পরের সাথে যুক্ত হয়ে বৃক্ষের শাখাপ্রশাখার মতো যে জলনির্গম প্রণালী সৃষ্টি করে, তাকে বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী (Dendritic Drainage Pattern) বলে ।

বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী (Dendritic Drainage Pattern)

বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী (Dendritic Drainage Pattern)

উদাঃ ভারতের গোদাবরী নদী অববাহিকায় গোদাবরী নদীর সাথে মঞ্জিরা, পেনগঙ্গা, ওয়েনগঙ্গা, ইন্দ্রাবতী প্রভৃতি উপনদীগুলি মিলিত হয়ে একটি সুন্দর বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী সৃষ্টি করেছে ।

বৈশিষ্ট্যঃ  বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী – র বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) এইরূপ জলনির্গম প্রণালীতে প্রধান নদীর সাথে উপনদীগুলি অনিয়মিতভাবে বিভিন্নদিক থেকে এসে মিলিত হয় ।
খ) উপনদীগুলি প্রধান নদীর সাথে বিভিন্ন কোণে মিলিত হলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তা সমকোণ (৯০°) অপেক্ষা কম হয় ।
গ) মূলতঃ একই প্রকার ক্ষয়প্রতিরোধকারী শিলা দ্বারা গঠিত স্থানে এরূপ জলনির্গম প্রণালী গড়ে ওঠে ।

One thought on “বৃক্ষরূপী জলনির্গম প্রণালী (Dendritic Drainage Pattern):

  1. Pingback: জলনির্গম প্রণালী (Drainage Pattern): – bhoogolok.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.