ক্র্যাগ ও টেল (Crag & Tail):

☻সংজ্ঞাঃ হিমবাহের গতিপথে কঠিন শিলাস্তরের পিছনে নরম শিলাস্তর থাকলে, অনেক সময় কঠিন শিলাস্তরটি পশ্চাদবর্তী নরম শিলাস্তরটিকে হিমবাহ কর্তৃক ক্ষয়ের প্রভাব থেকে রক্ষা করে । এর ফলে কঠিন শিলাস্তুপটি উঁচু ঢিবির মত আর পেছনের নরম শিলা সরু লেজের মত বিরাজ করে । এই রকম কঠিন শিলাকে ক্র্যাগ (Crag) এবং পিছনের ঢালযুক্ত নরম শিলাকে টেল (Tail) বলে ।

ক্র্যাগ ও টেল (Crag & Tail)

ক্র্যাগ ও টেল (Crag & Tail)

উদাঃ স্কটল্যান্ডের এডিনবরা ক্যাসেল সংশ্লিষ্ট অঞ্চলে ক্র্যাগ ও টেল দেখা যায় ।

বৈশিষ্ট্যঃ ক্র্যাগ ও টেল – এর বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক)এরা বিস্তীর্ণ অঞ্চল জুড়ে অবস্থিত হয় ।
খ) এগুলি অপেক্ষাকৃত কম উচ্চতাবিশিষ্ট অঞ্চলে দেখা যায় ।
গ) টেল অংশটি যতই ক্র্যাগ থেকে দূরে যায়, ততই ক্রমশ সরু হয়ে পড়ে ।

3 comments

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s