বায়ুপ্রবাহ ও জলধারার মিলিত কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ কি কি?

মরু অঞ্চলে ভূমিরূপ গঠনে বায়ু মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করলেও জলধারাও এই কার্যে কিছু কিছু সাহায্য করে থাকে । সাধারনতঃ পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতের অভাবে মরুভূমিগুলি সৃষ্টি হলেও মরু অঞ্চলগুলি কিন্তু একেবারেই বৃষ্টিহীন নয় । মরুপ্রায় অঞ্চলে যে সকল স্থানে বাৎসরিক গড় বৃষ্টিপাত ২৫ সেন্টিমিটার থেকে ৪৮ সেন্টিমিটার , সেই সকল স্থানে জলধারার কার্য লক্ষ্য করা যায় । এই সকল অঞ্চলে বৃষ্টিপাত খুব কম হলেও যখনই বৃষ্টিপাত হয় , তখন তা প্রবলভাবেই হয় । এই বর্ষণ কিন্তু খুব ক্ষণস্থায়ী । এর ফলে পর্বতগাত্র হইতে বহু ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বেগবতী জলধারা নিচে নেমে আসে । এই জলধারাগুলিকে ওয়াদি ( Wadis ) বলা হয় । এরা পর্বতগাত্র থেকে নামার সময় প্রস্তরখণ্ড , বালুকা প্রভৃতি প্রচুর পরিমাণে নিম্নাংশের দিকে বহন করে আনে । এই সকল জলধারায় জলের তুলনায় প্রস্তরখণ্ড , বালুকা প্রভৃতি এত অধিক পরিমাণে এসে পড়ে যে , অচিরেই জলধারা কর্দমধারায় ( Mudflow ) পরিণত হয়ে বহনকার্য বন্ধ করে দেয় । অনেক সময় উচ্চ পর্বতবেষ্টিত অববাহিকার নিম্নাংশে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র লবণ হ্রদের সৃষ্টি হয় , এদের প্লায়া হ্রদ ( Playas বা Salinas ) বলে । আফ্রিকার এই সকল হ্রদকে শটস ( Shotts ) এবং অ্যারিজোনা ও মেক্সিকোতে বােলসন ( Bolson ) বলা হয় । এই বায়ুপ্রবাহ ও জলধারার মিলিত কার্যের ফলে মরু অঞ্চলে সৃষ্ট বিভিন্ন বৈচিত্র্যপূর্ণ ভূমিরূপ গুলি হলো –
ক) পেডিমেন্ট (Piedmont) [Read More…]
খ) বাজাদা (Bajada), [Read More…]
গ) ওয়াদি (Wadi), [Read More…]
ঘ) প্লায়া (Playa) [Read More…] প্রভৃতি ।
***পরবর্তী পোষ্টে উপরিউক্ত ভূমিরূপগুলি সম্পর্কে পর্যায়ক্রমে বিস্তারিত আলোচনা করা হল ।