দ্রাস বালিয়াড়ি (Drush Dune):

☻সংজ্ঞাঃ তিমি মাছের পৃষ্ঠদেশের মতো সমতল শিখরবিশিষ্ট বালিয়াড়িকে দ্রাস বালিয়াড়ি (Drush Dune) বা তিমিপৃষ্ঠ বালিয়াড়ি (Whaleback Dune) বলে । 

উদাঃ সাহারা মরুভূমিতে দ্রাস বালিয়াড়ি দেখা যায় ।                                                                          

বৈশিষ্ট্যঃ দ্রাস বালিয়াড়ি – র বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) এগুলি বায়ু্প্রবাহের গতিপথের সাথে সমান্তরালভাবে অবস্থান করে ।
খ) এইপ্রকার বালিয়াড়ি দৈর্ঘ্যে প্রায় ১৫০ কিমি, প্রস্থে ১-৩ কিমি ও উচ্চতায় প্রায় ৪০০ মিটার পর্যন্ত হয় । 

6 thoughts on “দ্রাস বালিয়াড়ি (Drush Dune):

  1. Pingback: বায়ুপ্রবাহের সঞ্চয়কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপগুলি (Landforms made by Depositional Work of Wind): বালিয়াড়ি (Sand Dune) ও অন্যান্য স

  2. Pingback: বায়ুর সঞ্চয়কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ (Landforms made by Depositional Works of Wind) – বালিয়াড়ি (Sand Dunes) ও অন্যান্য সঞ্চয় (Other Deposi

  3. Pingback: বায়ুর সঞ্চয়কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ (Landforms made by Depositional Works of Wind) – বালিয়াড়ি (Sand Dunes) ও অন্যান্য সঞ্চয় (Other Deposi

  4. Pingback: বায়ুর সঞ্চয়কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ – বালিয়াড়ি (Sand Dunes) ও অন্যান্য সঞ্চয় (Other Depositions): | bhoogolok.wordpress.com

  5. Pingback: বায়ুর সঞ্চয় কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ – বালিয়াড়ি (Sand Dunes) ও অন্যান্য সঞ্চয় (Other Depositions): | bhoogolok.wordpress.com

  6. Pingback: বায়ুর সঞ্চয় কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ- বালিয়াড়ি (Sand Dunes) ও অন্যান্য সঞ্চয় (Other Depositions): | bhoogolok.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.