ড্রেইকান্টার (Dreikanter):

সংজ্ঞাঃ মরু অঞ্চলে সারা বছর ধরে বিভিন্ন সময়ে  বিভিন্ন দিক থেকে বাতাস প্রবাহিত হলে উন্মুক্ত শিলাখন্ডেরও বিভিন্ন দিক ক্ষয়প্রাপ্ত হয়ে মসৃণ ও চকচকে হয় । এরকম বহু মসৃণ তলবিশিষ্ট ভুমিরূপকে ড্রেইকান্টার (Dreikanter) বলে ।

উদাঃ সাহারা মরুভূমিতে অনেক ড্রেইকান্টার দেখা যায় ।

বৈশিষ্ট্যঃ ড্রেইকান্টার – এর বৈশিষ্ট্যগুলি হলো নিম্নরূপ –
ক) এটি বহু মসৃন তল বিশিষ্ট হয় ।
খ) বায়ুর অবঘর্ষ প্রক্রিয়ার ফলে এটি সৃষ্টি হয় ।

One thought on “ড্রেইকান্টার (Dreikanter):

  1. Pingback: বায়ুপ্রবাহের ক্ষয়কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ (Landforms made by Erosional Work of Wind): | bhoogolok.wordpress.com

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.